logo-img

২৬, জুন, ২০১৯, বুধবার | | ২২ শাওয়াল ১৪৪০


বাবা-মাকে ভিটে ছাড়া করলেন মেয়ে

রিপোর্টার: ০২ এপ্রিল ২০১৮, ০৮:২৫ পিএম


বাবা-মাকে ভিটে ছাড়া করলেন মেয়ে

হবিগঞ্জে হাজেরা খাতুন রুনু নামে এক মেয়ের বিরুদ্ধে ৯৫ বছর বয়সী বাবার জমি ও টাকা-পয়সা হাতিয়ে নিয়ে তার বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের অভিযোগ উঠেছে। এছাড়াও বাবা-মাকে ভিটে ছাড়া করেছেন তিনি। বৃদ্ধ বাবা-মা এখন মানবেতর জীবন-যাপন করছেন।

সোমবার দুপুরে হবিগঞ্জ প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে শহরের শায়েস্তানগর এলাকার বাসিন্দা বৃদ্ধ শেখ মো. সিদ্দিক আলী মেয়ের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ করেন।

তিনি জানান, দুই মেয়ে ও এক ছেলের জনক তিনি। একমাত্র ছেলে শেখ সিরাজুল ইসলাম বনবিভাগের অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারী। ছেলে চাকরির অধিকাংশ সময়ই কাটিয়েছেন সুন্দরবনে। ২৫ বছরের চাকরি জীবনে ছেলে তার কাছে ২০ লাখ টাকা সঞ্চয় করেন। সেই টাকা দিয়ে বাহুবল উপজেলার পুটিজুরী এলাকায় একটি করাতকল স্থাপন করা হয়। যেটি দেখাশুনার ভার ছিল ছোট মেয়ে হাজেরা খাতুন রুনু ও তার স্বামী আব্দুর রউফ ছানুর ওপর।

বৃদ্ধ বাবা সিদ্দিক আলী আরও জানান, ১২ বছরে ব্যবসা থেকে প্রায় ৩০ লাখ টাকা আয় হয়েছিল। শায়েস্তানগর এলাকায় বাসাসহ প্রায় তিন কোটি টাকা মূল্যের জমির দেখাশুনারও ভার ছিল মেয়ে-জামাইয়ের ওপর। ছলচাতুরি ও জালিয়াতির মাধ্যমে সব সম্পত্তি গ্রাস করে নিয়েছেন মেয়ে হাজেরা খাতুন। জাল দলিলও করেছেন। বার্ধক্যজনিত অসুস্থতা ও একমাত্র ছেলে কর্মস্থলে থাকার সুযোগে কখনও নেশাজাতীয় দ্রব্য সেবন করিয়ে আবার কখনও জোরপূর্বক তার কাছ থেকে ১৮টি অলিখিত চেক ও ১২টি অলিখিত স্ট্যাম্পে স্বাক্ষরও নিয়েছেন। সব হাতিয়ে নিয়ে সম্প্রতি তার বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করে ভিটে ছাড়া করেছেন মেয়ে হাজেরা খাতুন। এখন একমাত্র ছেলে ও স্ত্রীকে নিয়ে অসহায়ভাবে দিনযাপন করছেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে শেখ সিরাজুল ইসলাম ও তার মা উপস্থিত ছিলেন।