logo-img

১৭, জুলাই, ২০১৯, বুধবার | | ১৪ জ্বিলকদ ১৪৪০


জামা-প্যান্ট খুলে ফেললেন কেবিন ক্রু (ভিডিও)

রিপোর্টার: সময়ের বাণী ডেস্ক | ১৩ জুন ২০১৯, ০১:১৯ এএম


জামা-প্যান্ট খুলে ফেললেন কেবিন ক্রু (ভিডিও)

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এক অদ্ভুত ঘটনা ঘটেছে। ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের একজন সিনিয়র কেবিন ক্রু সিকিউরিটি চেকিং এর সময় ক্ষুব্ধ হয়ে জামা প্যান্ট খুলে ফেলেছেন। সিকিউরিটি চেকিং এ নিয়ম মাফিক বেল্ট খোলার কথা মনে করিয়ে দিতেই এই বিপত্তি ঘটে। এই ঘটনা বিমানবন্দরে বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। 

জানা যায়, বিমানবন্দরের অভ্যন্তরীণ টার্মিনালের প্রি-বোর্ডিং চেকিং গেটে বুধবার সকালে এমন ঘটনা ঘটে। বেসরকারি বিমান সংস্থা অবশ্য বলছে, এটি নিছক একটি ভুল বোঝাবুঝি। এটিকে বড় করে দেখার কিছু নেই। নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা যায়, মোহাম্মদ শাহফিকুর রহমান ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের সিনিয়র ক্রেবিন ক্রু। নিরাপত্তা তল্লাশির সময় তাকে বেল্ট খুলতে বলা হলে তিনি উত্তেজিত হয়ে জামা এবং প্যান্টও খুলে ফেলেন। বিমানবন্দরের নিরাপত্তায় থাকা কর্মীদের সাথেও এসময় অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন তিনি।

এই ঘটনার ফলে তাকে বিমানবন্দরের এভিয়েশন সিকিউরিটির কাছে হস্তান্তর করা হয়। পরে ইউ-এস বাংলা কর্তৃপক্ষ মুচলেকা দিয়ে তাকে ছাড়িয়ে নেয়। 

বিমানবন্দর সূত্র থেকে জানা গেছে, ইউএস-বাংলা এয়ার লাইনসের নতুন নিয়োগপ্রাপ্ত কেবিন ক্রুদেরকে প্রশিক্ষণের জন্য বিমানবন্দরে নিয়ে আসে ইউএস-বাংলা কর্তৃপক্ষ। কিন্তু ১৯ জন কেবিন ক্রুর কেউই তাদের অনুমতির কাগজ দেখাতে সক্ষম না হওয়ায় তাদের সেখান থেকে সরিয়ে দেয় নিরাপত্তা রক্ষীরা। একই সাথে বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদেরকেও অবহিত করেন তারা। 

এসময় ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের সিনিয়র কেবিন ক্রু মো. শাহফিকুর রহমানকে আর্চওয়ে দিয়ে প্রবেশ করার অনুরোধ জানানো হয়। নিয়ম অনুযায়ী মোবাইল, ঘড়ি, মানিব্যাগ এবং জুতা এক্স্-রে মেশিনে রাখেন তিনি। নিয়ম মাফিক তাকে কোমরের বেল্ট খুলে রাখতে বলা হয় ট্রেতে। আর তখনই ঘটে বিপত্তি। শাহফিকুর রহামান উত্তেজিত হয়ে পড়েন। এক পর্যায়ে তিনি জামা এবং প্যান্ট খুলে ট্রেতে রাখেন। ঘটনাটি নিরাপত্তা কর্মীদের হতাবাক করে দেয়।

পরে তাকে সেখান থেকে সরিয়ে নেয় এভিয়েশন সিকিউরিটির সদস্যরা। তাদের সাথেও শাহফিকুর রহমান অসদাচরণ করতে থাকে। এক পর্যায়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য এভসেক কন্ট্রোল রুমেও নেওয়া হয়। 

এ ব্যাপারে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের এভিয়েশন সিকিউরিটির বরাতে জানা যায়, এই অসদাচরণের জন্য তাকে মুচলেকা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। তিনি আশ্বস্ত করেছেন, এমন ঘটনা ভবিষ্যতে আর ঘটবে না। 

এ বিষয়ে ইউ-এস বাংলা এয়ারলাইনসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, ‘শাহফিকুরের প্যান্টের ভেতর আরও একটি থ্রি কোয়ার্টার প্যান্ট ছিল। সেটিতে ধাতব শব্দ হওয়ায় তিনি তার প্যান্ট খুলে দেখিয়েছেন। এবং এই বিব্রতকর পরিস্থিতির জন্য তিনি দুঃখ প্রকাশ করেছেন।'