logo-img

১৬, সেপ্টেম্বর, ২০১৯, সোমবার | | ১৬ মুহররম ১৪৪১


শিল্পীসুলভ পরীমনি

রিপোর্টার: বিনোদন | ২৬ মে ২০১৯, ০৭:৩০ পিএম


শিল্পীসুলভ পরীমনি

প্রশংসিত নির্মাতা মাসুদ হাসান উজ্জ্বল প্রথমবারের মতো নির্মাণ করছেন ওয়েব সিরিজ। নাম ‘পাফ ড্যাডি’। পলিটিক্যাল থ্রিলার ঘরানার এই সিরিজের অন্যতম চরিত্রে অভিনয় করছেন পরীমনি। সিরিজের মূল চরিত্রে আছেন আজাদ আবুল কালাম।
১১ মে শুটিং শুরু হলেও ২৩ মে থেকে ‘পাফ ড্যাডি’র ইউনিটে যুক্ত হন পরী। তিনি জানান, এতে তার চরিত্রের নাম টিনা। অভিনয় করবেন স্বরূপেই, মানে চিত্রনায়িকা হিসেবে।
এতে আরও অভিনয় করেছেন পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়, শহীদুজ্জামান সেলিম, বিজরী বরকতুল্লাহ, ইন্তেখাব দিনার, মৌটুসি বিশ্বাসসহ ৬২ অভিনয়শিল্পী।
সিরিজটি সম্পর্কে এর চিত্রনাট্যকার ও পরিচালক মাসুদ হাসান উজ্জ্বল বলেন, ‘এটি পলিটিক্যাল থ্রিলার ঘরানার কাজ। তবে পলিটিক্স এখানে সরাসরি থাকছে না। আছে প্রচ্ছন্নভাবে। ক্ষমতা, আসক্তিসহ বিভিন্ন থ্রিলিং উপাদান রয়েছে এতে। বাজেট বড় পেয়েছি, তাই কাজটির আয়োজনও সেই মাপের।’
পরী প্রসঙ্গে বলেন, ‘পরীমনির ভেতরে শিল্পীসুলভ একটা পাগলামি আছে, সেটা শিল্পীদের ভেতরে থাকতে হয়। কাজের ক্ষেত্রে খুবই মনোযোগী লেগেছে তাকে। একজন পরিচালকের প্রথম প্রায়োরিটি হলো অন টাইম সেটে উপস্থিত থাকা। তাকে আমরা অন টাইম সেটে পাচ্ছি। সুতরাং একটা ইতিবাচক মানসিকতা নিয়ে প্রতিদিনের শুটিং শুরু হচ্ছে।’  
অনলাইন প্ল্যাটফর্ম বঙ্গবিডির প্রযোজনায় মোট দশ পর্বে সাজানো হবে ‘পাফ ড্যাডি’কে।
এদিকে গিয়াস উদ্দিন সেলিমের ‘স্বপ্নজাল’ মুক্তির পর একেবারেই নিজেকে সামলে নিয়েছেন ঢাকাই ছবির অন্যতম নায়িকা পরীমনি। তখনই বলেছিলেন, ‘আর যেমন খুশি তেমন সিনেমা নয়। ভালো চিত্রনাট্যের সঙ্গে আর আপস নয়।’

সেই সূত্রে দীর্ঘ সময় নতুন কোনও সিনেমার সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হননি পরী। এর মধ্যে একই নির্মাতার একটি স্বল্পদৈর্ঘ্যে দেখা গেছে তাকে। সম্প্রতি যুক্ত হলেন চয়নিকা চৌধুরীর প্রথম ছবি ‘বিশ্ব সুন্দরী’তে। ফাঁকে কাজ করেছেন মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর টিভিসি ও হিমেল আশরাফের একটি ওয়েব সিরিজে।
‌‘পাফ ড্যাডি’ প্রসঙ্গে পরীর বক্তব্য এমন, ‘ওয়েবের জন্য প্রচুর প্রস্তাব আসছে। দু’একটা প্রস্তাবের স্ক্রিপ্ট পড়ার পর মনে হলো, ওয়েব সিরিজ বলতে যে ট্রেন্ড শুনছি সেই খুললাম খুল্লা বিষয়ক একই কাহিনি। নতুন কিছু পাইনি। এরপর বেশ কয়েকটা প্রত্যাখ্যান করেছি। আসলে আমার কাছে ওয়েব সিরিজ মানে স্মার্ট ডিল। যেটা হয়তো সবাই আদায় করতে পারে না। এরপর হঠাৎ মাসুদ হাসান উজ্জ্বলের অফারটি পাই। এরপর প্রোগ্রাম করে আমাদের বসা হয়। কথা হয় এই সিরিজ নিয়ে। মাসুদ হাসান উজ্জ্বলকে আমার কাছে গুড টিচার বলে মনে হয়েছে। বাসায় ফিরে স্ক্রিপ্ট পড়ে পুরোপুরি ভরসা পেলাম। এখন শুটিং করছি। দারুণ কিছুই হবে।’