logo-img

২৫, আগস্ট, ২০১৯, রোববার | | ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০


২২ পোশাক কারখানায় তালা

রিপোর্টার: সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | ২১ মে ২০১৯, ০৮:২৬ পিএম


২২ পোশাক কারখানায় তালা

ব্যবসা সংকটের কারণে শ্রমিকদের বেতন না দিতে পেরে গত ১৮ দিনে ২২টি পোশাক কারখানা বন্ধ করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

এ ২২টি ছাড়াও বাংলাদেশ তৈরি পোশাক প্রস্তুত ও রফতানিকারক সমিতির (বিজিএমইএ) তালিকাভুক্ত আরও ৩০টি পোশাক কারখানা বন্ধ হওয়ার পথে। বিজিএমই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বিজিএমইএ’র সভাপতি রুবানা হক বার্তা২৪.কমকে বলেন, আমি দায়িত্ব নেওয়ার পর ২২-২৩টি পোশাক কারখানা বন্ধ হয়ে গেছে। কারখানাগুলোতে বেশ কিছু দিন ধরে সমস্যা হচ্ছিল। তারা পণ্য রফতানি করতে পারছিল। এপ্রিল মাসেও শ্রমিকদের বেতন দিতে পারেনি। তাই তারা কারখানা বন্ধ করে দিয়েছে।

কারখানাগুলোর মধ্যে কয়েকটিতে দুই-তিন মাস ধরে সংকটে চলছিল। আবার কয়েকটি গত এক-দেড় বছর ধরে সংগ্রাম করে আসছিল বলেও জানান তিনি।

বিজিএমইএ সূত্র মতে, বিদেশি পণ্য রফতানির ক্ষেত্রে পোশাক কারখানাগুলো এখন দর কষাকষি করতে পারছে না। কিন্তু কেউ সাহস করে বলতে পারছে না। কিছু কারখানা ওভার ইনভেস্টমেন্ট (অতিরিক্ত বিনিয়োগ) করে আসছে। ফলে এখন এই খাতে চরম দূরাবস্থা চলছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বিজিএমইএ’র পরিচালক বলেন, এসব কারখানার মধ্যে বেশ কিছু কোম্পানি অনৈতিক প্রতিযোগিতার কারণে বন্ধ হয়েছে।

তিনি বলেন, ২২টি কারখানার মধ্যে একটি রয়েছে, যেটি গত পাঁচ বছর আগেও এক-দুই নম্বর পজিশনে ছিল। তারা একটা সময় এত বেশি অর্ডার নিত যে আশপাশের কোনো কারখানা অর্ডার নিতে পারত না। অথচ এখন কারখানাটি বন্ধ হয়ে গেছে।