logo-img

২৭, মে, ২০১৯, সোমবার | | ২২ রমজান ১৪৪০


ভূমধ্যসাগর নৌকাডুবি হবিগঞ্জের দুই যুবক নিখোঁজ

রিপোর্টার: সময়ের বাণী ডেস্ক | ১৪ মে ২০১৯, ০২:৪৯ এএম


ভূমধ্যসাগর নৌকাডুবি  হবিগঞ্জের দুই যুবক নিখোঁজ

লিবিয়া থেকে ইতালি যাবার পথে ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবির ঘটনায় হবিগঞ্জের দুই যুবক নিখোঁজ রয়েছে। তাদের ভাগ্যে কী ঘটেছে তা জানেন না পরিবারের লোকজন। তাই প্রত্যেক পরিবারে চলছে শোকের মাতম।

হবিগঞ্জের নিখোঁজ দুই যুবক হলেন, সদর উপজেলার লোকড়া গ্রামের হাজী আলাউদ্দিনের ছেলে আব্দুল কাইয়ুম ও আব্দুল জলিলের ছেলে আব্দুল মোক্তাদির। যদিও অপর নৌকায় থাকা তাদের সঙ্গী একই গ্রামের মর্তুজ আলীর ছেলে নূরুল আলম ইতালি পৌঁছে গেছেন। এছাড়া সদর উপজেলার আষেঢ়া ভাটপাড়া গ্রামের মামুন মিয়া সাগরে ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার হয়ে বর্তমানে তিউনিসিয়া উদ্বাস্তু শিবিরে রয়েছেন। কাইয়ুম ও মুকতাদিরের পরিবারের লোকজন শোকে মুহ্যমান হয়ে পড়েছে।

জানা যায়, কাইয়ুম, মুকতাদির, নূরুল আলম ও মামুন মিয়া ইতালি যাবার জন্য ৬/৭ মাস পূর্বে বাড়ি থেকে বের হয়ে দালালের মাধ্যমে প্রথমে লিবিয়া যায়। এরপর গত ৮ মে রাতে লিবিয়া থেকে ইতালি যাওয়ার উদ্দেশে তাদের দুটি নৌকায় তোলা হয়। আব্দুল কাইয়ুম, আব্দুল মোক্তাদির ও মামুন মিয়া এক নৌকায় ছিলেন। ওই নৌকায় যাত্রী ছিল ৭৫ জন। অপর নৌকায় ছিলেন নূরুল আলম। ওই নৌকাটি সাগর পাড়ি দিয়ে ইতালি পৌঁছে গেলেও কাইয়ুম, মুক্তাদির ও মামুনকে বহনকারী নৌকাটি তিউনিসিয়া উপকূলে ডুবে যায়। মামুনের নিকট বড় বেলুন থাকায় তিনি পানিতে ভাসতে থাকেন। এ সময় মুক্তাদিরও তার হাতে ধরা ছিল। সাগরে সাঁতরানোর একপর্যায়ে মামুন নিজেকে রক্ষায় মুক্তাদিরকে ছেড়ে দেন। এরপর মুক্তাদির মারা গেছেন নাকি বেঁচে আছেন এর কিছুই বলতে পারেন না মামুন। এদিকে নূরুল আলম তার পরিবারকে ইতালি পৌঁছার খবর নিশ্চিত করেছেন।