logo-img

২৭, মে, ২০১৯, সোমবার | | ২২ রমজান ১৪৪০


নবীগঞ্জে লন্ডনী কন্যাকে অপহরণের চেষ্টা ব্যর্থ হয়ে স্বামী ও গাড়ি চালকে অপহরণ

রিপোর্টার: নিজস্ব প্রতিবেদক | ০৬ মার্চ ২০১৯, ০৮:০৫ পিএম


নবীগঞ্জে লন্ডনী কন্যাকে অপহরণের চেষ্টা ব্যর্থ হয়ে স্বামী ও গাড়ি চালকে অপহরণ

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি বাজার সিএনজি পাস্প এলাকায় একটি প্রাইভেট কারকে একটি হাইএস গাড়ি দিয়ে গতিরোধ করে এক লন্ডন প্রবাসী কন্যাকে অপহরণ করতে ব্যর্থ হয়ে তাদের বহণকারী প্রাইভেট কার ভাংচুর করে লন্ডনী কন্যার স্বামী ও গাড়ির চালককে  অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে অপহরণ করে করে নিয়ে গেছে । স্থানীয় জনতা লন্ডনী কন্যাকে উদ্ধার করে নবীগঞ্জ থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাত সাড়ে ১০টায় ।

জানা যায়, সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলার লতিফপুর গ্রামের মাওলানা মাহমুদ হোসাইনের পুত্র মাওলানা আব্দুল্লাহ আল মাইমুন তার স্ত্রী জগন্নাথপুর উপজেলার শ্রীধরা পাশা গ্রামের যুক্তরাজ্য প্রবাসী মাওলানা সালাউদ্দিন মনসুর এর কন্যা যুক্তরাজ্য প্রবাসী সরিফা নুসরাত তাইবা(২০) কে নিয়ে সিলেট থেকে প্রাইভেট কার ঢাকা (মেট্রো-গ ১২-২২৩৪) যোগে মামার বাড়ি পাশ্ববর্তী জেলা মৌলভীবাজারে রায়পুর (মামরকপুর) যাওয়ার পথিমধ্যে প্রাইভেট কার এ গ্যাস নেয়ার জন্য রাত ১০টায় নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি গ্যাস পাম্পে আসে।

গ্যাস নিয়ে মৌলভীবাজার যাওয়ার পথিমধ্যে গ্যাস পাম্পের কিছুদূরের যাওয়ার পর হঠাৎ করে একটি কালোগ্লাসধারী হাই এস গাড়িটি প্রাইভেট কারের সামনে গিয়ে গতিরোধ করে। এসময় ৪-৫ জন অস্ত্রধারী হাই এস গাড়ি থেকে নেমে প্রাইভেট কার ভাংচুর করে। এবং কারে থাকা লন্ডনী কন্যার স্বামী মাওলানা আব্দুল্লাহ আল মাইমুন ও প্রাইভেট কার চালক আব্দুর রহিমকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে গাড়িতে তোলে ।

এসময় কৌশলে লন্ডনী কন্যা পালিয়ে গিয়ে স্থানীয় আউশকান্দি বাজারের একটি বাসায় আশ্রয় নেয়। এঘটনার খবর পেয়ে স্থানীয় শতশত মানুষ বাজারে এসে জড়ো হয়। পরে খবর পেয়ে নবীগঞ্জ থানার একদল পুলিশ ও শেরপুর হাইওয়ে থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে।

এসময় স্থানীয় চেয়ারম্যান ও সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে নবীগঞ্জ থানা পুলিশ মেয়েকে উদ্ধার করে নবীগঞ্জ থানায় নিয়ে যায়। এঘটনার পর থেকে নবীগঞ্জ থানা পুলিশ ও হবিগঞ্জ ডিবি পুলিশসহ বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা  অপহরণকারীদের চিহ্নিত করতে স্থানীয় সিএনজি গ্যাস পাম্পের সিসি টিভির ফুটেজসহ বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করেছে। এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত এ ঘটনার মোটিভ উৎঘাঠিত হয়নি এবং অপহৃতদের কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি।

নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মো. ইকবাল হোসেন জানান, ঘটনার রহস্য উদঘাটনে পুলিশ এবং বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা তৎপর রয়েছে। এঘটনায় এখন পর্যন্ত কোন মামলা দায়ের হয়নি।