logo-img

২০, অক্টোবর, ২০১৯, রোববার | | ২০ সফর ১৪৪১


শিগগিরই ডাকসু নির্বাচনের তফসিল চায় ছাত্রলীগ

রিপোর্টার: বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক | ১৬ জানুয়ারী ২০১৯, ১০:৩১ পিএম


শিগগিরই ডাকসু নির্বাচনের তফসিল চায় ছাত্রলীগ

শিগগিরই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনের তফসিল চায় দেশের প্রাচীনতম ও ঐতিহ্যবাহী সংগঠন ছাত্রলীগ। 

বুধবার বিকেলে মিছিল শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে এক সমাবেশে এ বিষয়ে ১৪ দফা দাবি জানায় সংগঠনটি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ আয়োজিত এ কর্মসূচিতে সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতারা অংশ নেন।

বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাসের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসাইনের সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য দেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন, সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী প্রমুখ। 

সমাবেশে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগসহ বিশ্ববিদ্যালয় ও বিভিন্ন হল শাখার নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

রেজওয়ানুল হক বলেন, আগামী দিনে বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দিতে হলে ডাকসুর মাধ্যমে মেধাবী নেতৃত্ব সৃষ্টি করতে হবে। মার্চ মাসের মধ্যে আমরা ডাকসু নির্বাচন চাই। তিনি বলেন, গায়ের জোর দিয়ে নয়, রাজনীতি হবে ভালোবাসা দিয়ে।

গোলাম রাব্বানী বলেন, সাধারণ শিক্ষার্থীরা তাদের কথা বলার জন্য একটি প্ল্যাটফর্ম খুঁজছে, যেটি গত ২৮ বছরে হয়নি। এই দীর্ঘসময়ে প্রশাসনের যে গড়িমসি, তা থেকে মুক্তি চাই। শিগগিরই ডাকসু নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করতে হবে। ডাকসু নির্বাচনের পরে দেশের সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজে ছাত্র সংসদ নির্বাচন চাই।

সনজিত চন্দ্র দাস বলেন, শিক্ষার্থীরা যাতে রাজনীতি চর্চা করতে পারেন, সে জন্য প্রশাসনকে অনতিবিলম্বে ডাকসু নির্বাচন দিতে অনুরোধ করছি। হাইকোর্ট যে রায় দিয়েছেন, তার প্রতি আমরা শ্রদ্ধাশীল।

সাদ্দাম হোসাইন বলেন, এই নির্বাচন নিয়ে ছিনিমিনি খেলা সহ্য করা হবে না। অনেক স্বপ্ন নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হলেও শিক্ষার্থীদের সিটের নিশ্চয়তা দেওয়া হয় না। এ অবস্থা চলতে পারে না। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে পূর্ণাঙ্গ আবাসিক বিশ্ববিদ্যালয় ঘোষণা করতে হবে।

ছাত্রলীগের ১৪ দফা দাবির মধ্যে রয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে পূর্ণাঙ্গ আবাসিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পরিণত করা, গবেষণা খাতে সর্বোচ্চ বরাদ্দ দেওয়া, আবাসন সংকটের আপদকালীন সমাধান, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক-একাডেমিক, পরীক্ষা ও ভর্তি সংক্রান্ত সব কার্যক্রম অটোমেশনের আওতায় আনা।

এর আগে 'স্বপ্নের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য' লেখা ব্যানার নিয়ে মিছিল করে ছাত্রলীগ। মিছিলটি মধুর ক্যান্টিন থেকে শুরু হয়ে অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে গিয়ে শেষ হয়।