logo-img

১৭, জুন, ২০১৯, সোমবার | | ১৩ শাওয়াল ১৪৪০


হরভজনের স্ত্রী-কন্যার ছায়া মাড়ানো মানা রাহুল-পান্ডিয়ার

রিপোর্টার: অনলাইন ডেস্ক | ১৬ জানুয়ারী ২০১৯, ০১:৪৩ পিএম


হরভজনের স্ত্রী-কন্যার ছায়া মাড়ানো মানা রাহুল-পান্ডিয়ার

ছবি: ফাইল

এক টিভি শো' জীবনের চেনা পথ অচেনা করে তুলেছে কেএল রাহুল এবং হার্ডিক পান্ডিয়ার। সতীর্থদের পাশে পাওয়ার উপায় নেই। বন্ধুদের পাশে পাচ্ছেন না। এশা গ্রপ্তা কখনো হার্ডিক পান্ডিয়ার বন্ধু ছিলেন না বলে মন্তব্য করেছেন। তাদের বিশ্বকাপ দলে না নেওয়ার কথা চাউর হয়েছে। এর মধ্যে ভারতের তারকা ক্রিকেটার হরভজন এক হাত নিলেন তাদের। সাবেক আইপিএল সতীর্থকে কড়া সমালোচনা করেছেন তিনি। 

'কফি উইথ করণ' অনুষ্ঠানে নারী বিদ্বেষী মন্তব্য করেন হার্ডিক এবং রাহুল। ভারতীয় বোর্ড অনির্দিষ্টকালের জন্য নির্বাসিত করেছে এই দুই ক্রিকেটারকে। ভারতীয় ক্রিকেট দলের হয়ে মুখ খুলেছেন দলের অধিনায়ক বিরাট কোহালিও। এবার সরব হলেন দলের সাবেক স্পিনার হরভজন সিং।

তিনি বলেন, 'কেএল রাহুল এবং হার্ডিক পান্ডিয়া থাকলে সেই টিম বাসে আমি আমার স্ত্রী-কন্যাকে উঠতে দেব না। তারা কী মনে করবে? নারীদের দিকে তাদের দৃষ্টিভঙ্গি পুরোপুরি ভুল। তারা যে ধরনের কথাবার্তা বলেছে বন্ধু-বান্ধবের সঙ্গেও আমরা তা নিয়ে আলোচনা করতে পারি না। আর ওরা অনায়াসে টেলিভিশনে বলে ফেলল। এখন সবাই ভাববে, হরভজন সিংহ, অনিল কুম্বলে বা সচিন টেন্ডুলকাররাও হয়তো এরকমই ছিল।'

ভারতীয় ক্রিকেট দলের সংস্কৃতি নিয়ে তাদের ভালো ধারণা আছে উল্লেখ করে ৩৮ বছর বয়সী হরভজন বলেন, 'এতদিন ধরে দলে খেলছে তারা। ভারতীয় দলের সংস্কৃতি নিয়ে বেশ ধারণা হয়েছে তাদের। আমার মতে, বিসিসিআই ঠিক কাজ করেছে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে। বোর্ডের এমন সিদ্ধান্তে আমি একটুও চমকায়নি।'