logo-img

২৪, ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, রোববার | | ১৮ জমাদিউস সানি ১৪৪০


শেখ হাসিনার কাছে জনতা হাত তুলে নৌকা মার্কায় ভোট দেওয়ার অঙ্গীকার

রিপোর্টার: নিজস্ব প্রতিবেদক | ২২ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৫:৩৭ পিএম


শেখ হাসিনার কাছে জনতা হাত তুলে নৌকা মার্কায় ভোট দেওয়ার অঙ্গীকার

সিলেট আলিয়া মাদ্রাসা মাঠ

আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট চেয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকারে থাকলে জনগণের কল্যাণ হয়, দেশের উন্নয়ন হয়। এই কল্যাণ ও উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে আবারও নৌকা মার্কাকে ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে জয়যুক্ত করুন।

শনিবার (২২ ডিসেম্বর) বিকেলে সিলেট আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।

জনসভার শুরুতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্মরণ করেন প্রধানমন্ত্রী। বঙ্গবন্ধু কন্যা বলেন, মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে যে সম্মান বাঙালি অর্জন করেছিল, তা জাতির পিতাকে সপরিবারে হত্যার মধ্য দিয়ে ধ্বংস করে দেওয়ার অপচেষ্টা করা হয়। তবে ২১ বছর পর ১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় এসে আমরা দেশের মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে কাজ শুরু করি।

২০০১ সালে বিদেশিদের কাছে গ্যাস বিক্রির মুচলেকা দিয়ে বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় আসে দাবি করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তারা ক্ষমতায় আসার পর দেশকে আবার পিছিয়ে দেয়। আমরা যেসব উন্নয়ন কর্মকা- শুরু করি সব বন্ধ করে দেয়। শুরু করে একের পর এক মানুষ খুন, বোমা হামলা, জঙ্গিবাদ। কতো মানুষকে তারা হত্যা করেছে, পুড়িয়ে মেরেছে, লুটপাট করেছে। সারাদেশে অরাজক পরিস্থিতি তৈরি করে। পাঁচবার দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন করেছিল দেশকে। জঙ্গিবাদী দেশ হিসেবে পরিচয় করিয়েছে এ দেশকে। মান-সম্মান শেষ করে দিয়েছিল বিএনপি। তাদের অপকর্মের কারণে বিশ্বদরবারে বাঙালির মাথা নত হয়ে আসে।

‘কিন্তু ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে আবার দেশকে উন্নত-সমৃদ্ধ করার কাজ শুরু করে। আসলে আওয়ামী লীগ সরকারে থাকলে জনগণের কল্যাণ হয়। ২০০৮ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত এই দশ বছরে আমরা বাংলাদেশকে অর্থনৈতিকভাবে সমৃদ্ধ একটি দেশ হিসেবে পরিণত করেছি। বাংলাদেশ এখন বিশ্বদরবারে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে মর্যাদা লাভ করেছে।’

শেখ হাসিনা তার সরকারের নানা উন্নয়ন কর্মকা-ের কথা তুলে ধরে বলেন, আমরা জনগণের কল্যাণে কাজ করছি। দেশের মানুষের জীবনমান উন্নত করেছি। ২০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের সক্ষমতা অর্জন করেছি। প্রত্যেক ঘরে ঘরে আলো জ্বালবো, এই লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছি। দারিদ্র্য বলে কিছু দেশে থাকবে না।

তারুণ্যই শক্তি, তারুণ্যই দেশের সমৃদ্ধি আনবে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই দেশকে আমরা গড়ে তুলতে চাই। সে লক্ষ্যে কাজ করছি।

তিনি নৌকাকে বিপদাপদের বন্ধু এবং উন্নয়নের প্রতীক উল্লেখ করে বলেন, নৌকা মানুষের বিপদের বন্ধু। সেই নূহ নবীর নৌকা বিপদ থেকে মানবজাতিকে রক্ষা করেছিল। নৌকায় ভোট দিয়ে আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি। অর্থনৈতিক সমৃদ্ধিলাভ করেছি। আত্মমর্যাদা লাভ করেছি। তাই আসন্ন নির্বাচনেও নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে জনগণের সেবা করার সুযোগ দিন।

প্রধানমন্ত্রী এ সময় বৃহত্তর সিলেটের বিভিন্ন আসনে আওয়ামী লীগ ও এর নেতৃত্বাধীন মহাজোটের প্রার্থীদের পরিচয় করিয়ে দিয়ে তাদের জন্য ভোট চান জনতার কাছে। জনতাও হাত তুলে নৌকা মার্কায় ভোট দেওয়ার অঙ্গীকার করেন শেখ হাসিনার কাছে।