logo-img

২৪, ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, রোববার | | ১৮ জমাদিউস সানি ১৪৪০


রফতানি বাড়াতে বাজার খুঁজতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

রিপোর্টার: অনলাইন ডেস্ক | ২২ নভেম্বর ২০১৮, ০১:৪৯ পিএম


রফতানি বাড়াতে বাজার খুঁজতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

ফাইল ছবি

চামড়া শিল্পের সম্ভাবনাকে কাজে লাগানোর জন্য ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, রফতানি বাড়াতে হলে বাজার খুঁজতে হবে। তা হলে রফতানি বাড়বে এবং লাভবানও হবেন।

আজ বৃহস্পতিবার (২২ নভেম্বর) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত বাংলাদেশ লেদার ফুটওয়্যার অ্যান্ড লেদার গুডস ইন্টারন্যাশনাল সোর্সিং গুডস’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, শুধু রফতানি করলে হবে না, বিদেশে এবং দেশে বাজার বাড়াতে হবে। যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে পণ্য তৈরি করতে হবে। এ ক্ষেত্রে প্রাইভেট সেক্টর এগিয়ে এলে ভালো হয়। যুব সমাজকে ট্রেনিংয়ের মাধ্যমে দক্ষ করে গড়ে তুলতে হবে। তাদের কাজে লাগাতে হবে।

তিনি বলেন, বর্তমানে আমরা বিশ্বের বিভিন্ন দেশগুলোর সঙ্গে সম্পর্কোন্নয়নে অর্থনৈতিক কূটনীতিকে প্রাধান্য দিচ্ছি। এর আলোকে বিভিন্ন দেশে থাকা বাংলাদেশি কূটনীতিকদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে সে সব দেশের পণ্যের চাহিদা বিষয়ে তথ্য দেওয়ার জন্য। যাতে আমরা রফতানি বৃদ্ধি করতে পারি। এ ছাড়া ওই সব দেশের ব্যবসায়ী ও জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বলে বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী করার জন্য কাজ করতেও বাংলাদেশি কূটনীতিকদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা এক্সপোর্ট বাস্কেট বাড়ানোর প্রতি জোর দিয়েছি। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মানুষের চাহিদার ওপর জোর দিয়ে আমাদের রফতানি বাণিজ্য নির্ধারণের পাশাপাশি কর্মসংস্থান ও আয় বাড়ানোর পথ সুগম হবে। এর জন্য সরকার সব ধরনের সুযোগ সৃষ্টি করে দিতে আন্তরিক।

চামড়া শিল্পের বিকাশে সাভারে ট্যানারি শিল্প স্থানান্তর করা হয়েছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা চামড়া শিল্পের আধুনিকায়নের ওপর জোর দিয়েছি। এরই ধারাবাহিকতায় রাজশাহী এবং চট্টগ্রামে আরও দুটি আধুনিক ট্যানারি শিল্প এলাকা গড়ে তোলার ইচ্ছা রয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী এ সময় আধুনিক পদ্ধতিতে চামড়ার সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিতে চামড়া শিল্প মালিকদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। তিনি ব্যবসায়ীদের চামড়াজাত পণ্যের জনপ্রিয় ব্র্যান্ডগুলোকে বাংলাদেশে শিল্প স্থাপনে আগ্রহী করতে কাজ করারও পরামর্শ দেন।

অনুষ্ঠানে সরকারের বিভিন্ন দফতরের মন্ত্রী, ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও চামড়া শিল্পের সঙ্গে জড়িত ব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিলেন।